আম আঁটির ভেঁপু -বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় pdf download

aam atir vepu book by Bivutivushon Bondopadhai pdf download from Movitai.

আম আঁটির ভেঁপু উপন্যাস Pdf download

aam atir vepu book pdf download
বইঃআম আঁটির ভেঁপু
লেখকঃবিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়
প্রকাশনীঃবিভাস
ফরম্যাটঃপিডিএফ ফাইল
ক্যাটাগরিঃশিশু-কিশোর উপন্যাস বই PDF

আম আঁটির ভেঁপু -বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায় pdf download

বিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায়ের এক যুগান্তকারী সৃষ্টি হলো পথের পাচালী যার দ্বিতীয় খন্ড হচ্ছে আটির ভেপু | পল্লী প্রকৃিতির এক অনাবিল পরিবেশে দুই ভাইবোনের এক অকৃত্তিম ভালোবাসার সম্পর্ক বইটিতে এক অন্য রকমীবনীশক্তির সঞ্চার করে । অপু ও দুর্গার মা সর্বজয়া যেন পল্লিমায়ের শাশ্বত চরিত্রের প্রতিনিধি৷গ্রামীণ পরিবেশের মাঝে এক সাধারণ পরিবারের দৈনন্দিন শত অভাবের মাঝেও প্রকৃত সুখকে খুঁজে পাওয়ার এক অনাবিল আনন্দ বইটিতে ফুটে উঠেছে |

সকালবেলা । আটটা কি নয়টা । হরিহরের পুত্র আপনমনে রোয়াকে বসিয়া খেলা করিতেছে । এমন সময় তাহার দিদি দুর্গা উঠানের কাঁঠালতলা হইতে ডাকিল — অপু ও – অপু সে এতক্ষণ বাড়ি ছিল না , কোথা হইতে এইমাত্র আসিল । তাহার স্বর একটু সতর্কতামিশ্রিত । দুর্গার বয়স দশ – এগারো বৎসর হইল । গড়ন পাতলা – পাতলা , রঙ অপুর মতো এতটা ফরসা নয় , একটু চাপা । হাতে কাচের চুড়ি , পরনে ময়লা কাপড় , মাথার চুল রুক্ষ – বাতাসে উড়িতেছে , মুখের গড়ন মন্দ নয় , অপুর মতো চোখগুলি বেশ ডাগর – ডাগর ।

আম আঁটির ভেঁপু সম্পূর্ণ গল্প pdf download

অপু রোয়াক হইতে নামিয়া কাছে গেল , বলিল — কি রে ? দুর্গার হাতে একটা নারিকেলের মালা । সেটা সে নিচু করিয়া দেখাইল , কতকগুলি কচি আম কাটা । সুর নিচু করিয়া বলিল — মা ঘাট থেকে আসেনি তো ? অপু ঘাড় নাড়িয়া বলিল — উহু দুৰ্গা চুপি চুপি বলিল — একটু তেল আর একটু নুন নিয়ে আসতে পারস ? আমের কুশি জারাব— অপু আহ্লাদের সহিত বলিয়া উঠিল — কোথা পেলি রে দিদি ? দুর্গা বলিল — পটলিদের বাগানে সিঁদুরকোটার তলায় পড়েছিল — আন্ দিকি একটু নুন আর তেল ! অপু দিদির দিকে চাহিয়া বলিল— তেলের ভাঁড় ছুঁলে মা মারবে যে !

আমার কাপড় যে বাসি ! —তুই যা না শিগগির করে , আসতে এখন ঢের দেরি — ক্ষার কাঁচতে গিয়েচে — শিগগির যা । অপু বলিল — নারকোলের মালাটা আমায় দে । — তুই তো একটা হাবা ছেলে অপু বাড়ির মধ্য হইতে বাহির হইয়া আসিলে দুর্গা তাহার হাত হইতে মালা লইয়া আমগুলি বেশ করিয়া মাখিল , বলিল — নে হাত পাত্‌ । -তুই অতগুলো খাবি দিদি ? — -অতগুলো বুঝি হল ? এই তো ভারি বেশি — যা , আচ্ছা নে আর দুখানা — বাহ , দেখতে বেশ হয়েছে রে — একটা লঙ্কা আনতে পারিস ? আর একখানা দেব তাহলে — লঙ্কা কী করে পাড়ব দিদি । মা যে তক্তার ওপর রেখে দ্যায় — আমি যে নাগাল পাইনে !

Download Now Aam Atir Vepu Pdf Book